অর্থনীতির ধারণা: অর্থনৈতিক সম্পদ ও দ্রব্য - Quiz Bee

Latest

Quiz Bee

একটি মুক্ত জ্ঞান চর্চা মঞ্চ

Wednesday, June 10, 2020

অর্থনীতির ধারণা: অর্থনৈতিক সম্পদ ও দ্রব্য

অর্থনীতির ধারণা: অর্থনৈতিক সম্পদ ও দ্রব্য
অর্থনৈতিক সম্পদ:

সম্পদ কাকে বলে?
উত্তর: সকল প্রকার অর্থনৈতিক দ্রব্যকে সম্পদ বলে।

অর্থনৈতিক সম্পদ কাকে বলে?
উত্তর: যে সমস্ত দ্রব্যের উপযোগ রয়েছে, জোগান চাহিদার তুলনায় সীমাবদ্ধ যা হস্তান্তরযোগ্য এবং বাহ্যিক সত্তার অধিকারী তাকে অর্থনৈতিক সম্পদ বলে।

কোনো জিনিসকে অর্থনৈতিক সম্পদ বলতে হলে কয়টি বৈশিষ্ট্য থাকা বিদ্যমান?
উত্তর: ৪ টি। যথা: (১) উপযোগ, (২) অপ্রাচুর্যতা, (৩) হস্তান্তরযোগ্য ও (৪) বাহ্যিকতা।

উপযোগ বলতে কি বুঝায়?
উত্তর: কোনো দ্রব্যের মানুষের অভাব মেটানোর ক্ষমতা কে উপযোগ বুঝায়।

অপ্রাচুর্যতা বলতে কি বুঝায়?
উত্তর: কোনো দ্রব্য সম্পদ হতে হলে তার পরিমাণ ও যোগান সীমিত হতে হবে। যা মানুষ অর্থ ব্যয় করে কিনবে। যে সকল জিনিস সহজেই পাওয়া যায় তার অপ্রাচুর্যতা নেই।

উৎস ও উৎপত্তির দিক দিয়ে সম্পদ কয় প্রকার?
উত্তর: তিন প্রকার। যথা: (১) প্রাকৃতিক সম্পদ, (২) মানবিক সম্পদ ও (৩) উৎপাদিত সম্পদ।

প্রাকৃতিক সম্পদ কাকে বলে?
উত্তর: যে সকল দ্রব্য প্রাকৃতি থেকে সংগ্রহ করা হয় ও মানুষের প্রয়োজনীয়তা মিটায় তাকে প্রাকৃতিক সম্পদ বলে। যেমন: ভূমি, খনিজ সম্পদ ইত্যাদি।

মানবিক সম্পদ কাকে বলে?
উত্তর: মানুষের বিভিন্ন প্রকার যোগ্যতা ও দক্ষতাকে বলা হয় মানবিক সম্পদ। যেমন: প্রতিভা, দক্ষতা, যোগ্যতা ইত্যাদি।

উৎপাদিত সম্পদ কাকে বলে?
উত্তর: প্রাকৃতিক ও মানবিক সম্পদ কাজে লাগিয়ে যে সম্পদ সৃষ্টি করা হয় তাকে উৎপাদিত সম্পদ বলে। যেমন: কাঁচামাল, যন্ত্রপাতি, কলকারখান ইত্যাদি।

দ্রব্য:

দ্রব্য কাকে বলে?
উত্তর: মানুষের অভাব মেটাবার ক্ষমতাসম্পন্ন বস্তুগত সম্পদকে দ্রব্য বলে।

অবাধলভ্য দ্রব্য কাকে বলে?
উত্তর: যে সমস্ত দ্রব্য বিনামূল্যে পাওয়া যায় তাকে অবাধলভ্য দ্রব্য বলে। যেমন: আলো, বাতাস ইত্যাদি।

অর্থনৈতিক দ্রব্য কাকে বলে?
উত্তর: যে সমস্ত দ্রব্য পাওয়ার জন্য মানুষকে অর্থ বা মূল্য প্রদান করতে হয় তাকে অর্থনৈতিক দ্রব্য বলে। যেমন: বই, খাতা, কলম ইত্যাদি।

ভোগ্য দ্রব্য কাকে বলে?
উত্তর: ভোগ বা ব্যবহারের মাধ্যমে যেসকল দ্রব্যের উপযোগ নিঃশেষ করা হয় তাকে ভোগ্য দ্রব্য বলে। যেমন: গাড়ি, বস্তু ইত্যাদি।

স্থায়ী ভোগ্য দ্রব্য কাকে বলে?
উত্তর: যে সমস্ত ভোগ্য দ্রব্য দীর্ঘকাল ধরে ভোগ করা যায় তাকে স্থায়ী ভোগ্য দ্রব্য বলে। যেমন: গাড়ি, ফ্রিজ ইত্যাদি।

অস্থায়ী ভোগ্য দ্রব্য কাকে বলে?
উত্তর: যে সমস্ত ভোগ্য দ্রব্য সল্পকালীন সময় ভোগ করা যায় বা কিছুক্ষেত্রে একবার ভোগ করা যায় সে সমস্ত দ্রব্য কে অস্থায়ী দ্রব্য বলে। যেমন: খাদ্য, বস্ত্র ইত্যাদি।

মধ্যবর্তী ভোগ্য দ্রব্য কাকে বলে?
উত্তর: যে সকল দ্রব্য সরাসরি ভোগ না করে উৎপাদিত দ্রব্যের উপকরণ হিসেবে ভোগ করা হয় তাকে মধ্যবর্তী ভোগ্য দ্রব্য বলে। যেমন: কাঁচামাল।

চূড়ান্ত দ্রব্য কাকে বলে?
উত্তর: যে সমস্ত উৎপাদিত দ্রব্য সরাসরি ভোগ করা হয় তাকে চূড়ান্ত দ্রব্য বলে। 

মূলধনী দ্রব্য কাকে বলে?
উত্তর: যে সমস্ত উৎপাদিত দ্রব্য অন্য দ্রব্য উৎপাধনে সহায়তা করে তাকে মূলধনী দ্রব্য বলে।

পণ্য কাকে বলে?
উত্তর: যে সমস্ত দ্রব্য ও সেবা উপযোগসম্পন্ন ও বিক্রয় করার যোগ্য তাদের পণ্য বলে। অতএব সকল অর্থনৈতিক দ্রব্যই পণ্য।

No comments:

Post a Comment

Featured post

জাতীয় বাজেট: ২০২০-২০২১ অর্থবছর

২০২০-২০২১ অর্থবছরের বাজেট কততম বাজেট? উত্তর: ৪৯ তম বাজেট। বাংলাদেশে অন্তর্বর্তীকালীন বাজেটসহ ২০২০-২০২১ অর্থবছরের বাজেট কততম বাজেট? ...