১৯৫২ এর ভাষা আন্দোলন - Quiz Bee

Latest

Quiz Bee

একটি মুক্ত জ্ঞান চর্চা মঞ্চ

Tuesday, December 24, 2019

১৯৫২ এর ভাষা আন্দোলন

১৯৫২ এর ভাষা আন্দোলন
ভাষা আন্দোলনের কারণ কি?
উত্তর: তৎকালীন পূর্ব বাংলার সংখ্যাগরিষ্ঠ বাংলা ভাষাবাসীর মানুষের উপর পাকিস্তান সরকার কতৃক উর্দু ভাষা চাপিয়ে দেওয়া।

“উর্দু এবং একমাত্র উর্দুই হবে পাকিস্তানের রাষ্ট্রভাষা” এ উক্তিটি কার?
উত্তর:  মুহাম্মদ আলী জিন্নাহর।

ভাষা আন্দোলনের সময় কত শতাংশ মানুষের মুখের ভাষা ছিল বাংলা?
উত্তর: ৫৬%।

উর্দুকে রাষ্ট্র ভাষা করার প্রস্তাব গৃহীত হয় কত সালে?
উত্তর: ১৯৪৭ সালে।

 ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের সময় পূর্ব বাংলার মুখ্যমন্ত্রী কে ছিলেন?
উত্তর:  নুরুল আমিন।

ভাষা আন্দোলনের পথ প্রদর্শক খ্যাত ছিলেন কে?
উত্তর: ধীরেন্দ্র নাথ দত্ত।

গণ পরিষদে উর্দু ও ইংরেজির পাশাপাশি বাংলাকে অন্যতম ভাষা হিসেবে প্রস্তাব করেন কে ?
উত্তর: ধীরেন্দ্র নাথ দত্ত।

গণ পরিষদে প্রথম বাংলায় বক্তৃতা দেন কে?
উত্তর: মাওলানা আবদুর রশিদ তর্কবাগীশ।

তমদ্দুন মজলিস গঠন করা হয় কবে?
উত্তর: সেপ্টম্বর ১৯৪৭

সর্বদলীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ গঠন করা হয় কবে?
উত্তর: ২ মার্চ , ১৯৪৮ ।

রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ প্রথম গঠন হয় কবে?
উত্তর: ১ অক্টোবর , ১৯৪৮ ।

ভাষা আন্দোলন কত সালে হয়?
উত্তর: ১৯৫২ সালে।

২১ ফেব্রুয়ারি ভাষা আন্দোলনে কারা শহিদ হন?
উত্তর: রফিক, সালাম, বরকত, জব্বারসহ নাম না জানা আরো অনেকে।

২২ ফেব্রুয়ারি কারা শহিদ হন?
উত্তর: শফিক, আউয়াল ও এক কিশোর।

সবচেয়ে কম বয়সী ভাষা শহিদের নাম কী ?
উত্তর: অহিউল্লাহ।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হোস্টেল প্রাঙ্গনে শহিদ মিনার নির্মাণ করা হয় কবে?
উত্তর: ২৩ ফেব্রুয়ারি, ১৯৫২।

প্রথম শহিদ মিনার উদ্বোধন করেন কে?
উত্তর: শহিদ শফিউর রহমান শফিকের পিতা।

শহিদ শফিউর রহমান শফিকের পিতা কত তারিখ শহিদ মিনার উদ্বোধন করেন?
উত্তর: ২৪ ফেব্রুয়ারি, ১৯৫২।

প্রথম শহিদ মিনারটির উচ্চতা ছিল কত?
উত্তর: ১০ ফুট উঁচু ও ৬ ফুট চওড়া।

বর্তমানে কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারের উচ্চতা কত?
উত্তর: ৪৬ ফুট।

প্রথম শহিদ মিনার পুলিশ ও সেনাবাহিনী ভেঙ্গে ফেলে কত তারিখ?
উত্তর: ২৬ ফেব্রুয়ারি, ১৯৫২।

প্রথম শহিদ মিনার ভেঙ্গে ফেললে আবার কোথায় শহিদ মিনার নির্মাণ করা হয়?
উত্তর: ঢাকা কলেজ। যা পরবর্তীতে আবার ভেঙ্গে ফেলে।

ভাষা আন্দোলনের মুখপত্রের নাম কি?
উত্তর: সাপ্তাহিক সৈনিক ।

পাকিস্তান গণপরিষদ বাংলাকে পাকিস্তানের অন্যতম রাষ্ট্রভাষার স্বীকৃতি দিয়ে বিল পাশ হয় কবে?
উত্তর: ৭ মে, ১৯৫৪ ।

বাংলাকে পাকিস্তানের অন্যতম রাষ্ট্রভাষার সাংবিধানিক স্বীকৃতি দেওয়া হয় কবে?
উত্তর: ২৯ ফেব্রুয়ারি ১৯৫৬।

পাকিস্তানের সংবিধানের কততম অধ্যায়ে রাষ্ট্রভাষা হিসেবে বাংলাকে স্বীকৃতি দেওয়া হয়?
উত্তর: পাকিস্তানের সংবিধানের ২১৪ অধ্যায়ে ।

২১শে ফেব্রুয়ারিকে শহীদ দিবস ও সরকারি ছুটির দিন হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি দেওয়া হয় কবে?
উত্তর: ২১ ফেব্রুয়ারি, ১৯৫৬ ।

২১শে ফেব্রুয়ারিকে ১ম আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হয় কবে?
উত্তর: ১৭ নভেম্বর, ১৯৯৯।

ইউনেস্কোর কততম অধিবেশনে ২১শে ফেব্রুয়ারিকে প্রথম আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হয়?
উত্তর: ২০০৮ সালের ইউনেস্কোর ৩০তম অধিবেশনে।

সারা বিশ্বে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস প্রথম পালন করা হয় কবে?
উত্তর: ২০০০ সাল থেকে ।

একুশে ফেব্রুয়ারির চেতনা কি?
উত্তর: বাঙালী জাতীয়তাবাদ।

একুশে ফেব্রুয়ারির চেতনা থেকে জাতির মননের প্রতীক হিসেবে যে সংস্থা প্রতিষ্ঠিত হয় তার নাম
কি?
উত্তর: বাংলা একাডেমি।

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট কোথায় অবস্থিত?
উত্তর: সেগুন বাগিচা, ঢাকা।

২১শে ফেব্রুয়ারি, ১৯৫২ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কোথায় ছিলেন?
উত্তর: জেলে ।

২১ শে ফেব্রুয়ারি ১৯৫২ বাংলা ক্যলেন্ডারে কত তারিখ?
উত্তর: ৮ ফাল্গুন, ১৩৫৯।

বাংলাদেশ ব্যতীত কোন দেশ বাংলাকে মাতৃভাষার মর্যাদা দিয়েছে?
উত্তর: আফ্রিকার দেশ সিয়েরা লিওন।

বাংলাদেশ ভূ-খণ্ডের বাইরে কোথায় বাংলাকে আধা সরকারি ভাষার মর্যাদা দেয়া হয়?
উত্তর: আসামের বাঙালি অধ্যুষিত ৩টি জেলায়।

দেশের বাইরে প্রথম শহীদ মিনার স্থাপন করা হয় কোথায়?
উত্তর: জাপানে।

প্রথম বাংলাদেশের বাইরে কোথায় বাংলা ভাষা শিক্ষা দেয়া হয়?
উত্তর: কানাডার টরেন্টো ইউনিভার্সিটিতে।

ভাষা ভাষীর দিক থেকে বিশ্বে বাংলা ভাষার অবস্থান কত?
উত্তর: সপ্তম।

বাংলাদেশে কতটি মাতৃভাষা রয়েছে?
উত্তর: ৪১টি । যার মধ্যে বিভিন্ন নৃ-গোষ্ঠীর মাতৃভাষা ৪০টি।

ভাষা আন্দোলনের ১ম পুস্তিকার নাম কী?
উত্তর: পাকিস্তানের রাষ্ট্র-ভাষা : বাংলা - না উর্দু?

“রাষ্ট্র ভাষা বাংলা না উর্দু" পুস্তিকার রচয়িতা কে?
উত্তর: ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ।

“কাঁদতে আসিনি ফাঁসির দাবি নিয়ে এসেছি” কবিতাটির রচয়িতা কে?
উত্তর: মাহবুবুল আলম চৌধুরী।

“ওরা আমার মুখের ভাষা কাইড়া নিতে চায়” কবিতাটির রচয়িতা কে?
উত্তর: আব্দুল লতিফ।

“আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি” গানটির রচয়িতা কে?
উত্তর: আব্দুল গাফফার চৌধুরী ।

“আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি” গানটির বর্তমান সুরকার কে?
উত্তর: আলতাফ মাহমুদ।

“আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি” গানটির প্রথম সুরকার কে?
উত্তর: সুরকার আব্দুল লতিফ।

“সালাম সালাম হাজার সালাম” এই গানটির গীতিকার কে?
উত্তর: ফজল এ খোদা।

“সালাম সালাম হাজার সালাম” এই গানটির সুরকার ও শিল্পী কে?
উত্তর: আব্দুল জব্বার।

“মোদের গরব মোদের আশা আ-মরি বাংলা ভাষা” কবিতাটির রচয়িতা কে?
উত্তর: অতুল প্রসাদ সেন।

“আরেক ফাল্গুন” উপন্যাসটির রচয়িতা কে?
উত্তর: জহির রায়হান।

“একুশে ফেব্রুয়ারি” উপন্যাসটির রচয়িতা কে?
উত্তর: শওকত ওসমান।

“আর্তনাদ” উপন্যাসটির রচয়িতা কে?
উত্তর: সেলিনা হোসেন।

“জীবন থেকে নেয়া” চলচ্চিত্ররটির পরিচালক কে?
উত্তর: জহির রায়হান ।

“কবর” নাটকের রচয়িতা কে?
উত্তর: মুনীর চৌধুরী।

No comments:

Post a Comment

Featured post

জাতীয় বাজেট: ২০২০-২০২১ অর্থবছর

২০২০-২০২১ অর্থবছরের বাজেট কততম বাজেট? উত্তর: ৪৯ তম বাজেট। বাংলাদেশে অন্তর্বর্তীকালীন বাজেটসহ ২০২০-২০২১ অর্থবছরের বাজেট কততম বাজেট? ...